izmir kizlar
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam inönü üniversitesi taban puanları

মিথ্যা বানোয়াট ষড়যন্ত্রমূলক প্রকাশিত সংবাদের মোহাম্মদ ইসমাইল সিআইপি’র প্রতিবাদ

IMG_20200813_100601.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি।।

গত ৩১ই জুলাই রাতে টেকনাফ বাহারছড়া পুলিশের চেকপোস্টে অবসর প্রাপ্ত সেনা কমকর্তা মেজর সিনহা মো: রাশেদ খান পুলিশের গুলিতে নিহত হওয়ার ঘটনায় দেশবাসীর সাথে আমিও শোকাহত। ইতিমধ্যে মেজর সিনহা পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটলিয়ন (র‍্যাব) কে বিজ্ঞ আদালত মামলাটি তদন্ত করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। অভিযুক্তরা বর্তমানে কক্সবাজার জেলা কারাগারে এবং রিমান্ডে আছেন। এলিট ফোর্স র‍্যাবের পাশাপাশি সরকারের ও উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি দল আলোচিত এ ঘটনাটি তদন্ত করছেন। তদন্তাধীন মামলাটি নিয়ে ইতিমধ্যে মিডিয়া ট্রায়াল শুরু হয়ে গেছে। যেখানে বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টাল আমাকে জড়িয়ে মিথ্যা সংবাদটি মুখরোচক করতে কাল্পনিক চরিত্র সাজিয়েছে।

উক্ত সংবাদে আমাকে জড়িয়ে যেসব কেচ্ছা-কাহিনী রটানো হয়েছে তা শাক দিয়ে মাছ ঢাকা ছাড়া আর কিছুই নয়। আমি প্রকাশিত মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যমুলক সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি । আমি মোহাম্মদ ইসমাইল প্রবাসে দীর্ঘদিন ধরে সুনামের সাথে ব্যবসা করে আসছি। যাহা সরকার এবং সরকারের বিভিন্ন বাহিনী অবগত আছেন।

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের কঠিন সময়ে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় মানুষের পাশে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে খাদ্যসামগ্রী থেকে শুরু করে নগদ অর্থ বিতরণ করেছি। যাতে এই করোনারকালীন সময়ে স্বাস্হ্যবিধি মেনে নিজ নিজ ঘরে অবস্থান করে। অসহায় এ মানুষগুলোর মুখে হাঁসি ফুটাতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি।

দেশ তথা সৌদি আরব ও আরব আমিরাতে আওয়ামীলীগ কে সুসংগঠিত করতে যে পরিবারের ভুমিকা চির স্বরণীয় হয়ে থাকবে তার মধ্য অন্যতম আলহাজ্ব উলা মিয়ার পরিবার। আমি এ পরিবারের একজন গর্বিত সদস্য। আমাদের পরিবারে ২০০ জনের ওপরে সদস্য আছে। সবাই আওয়ামীলীগের রাজনিতির সাথে জড়িত। অন্য কোন দলের নয়।

আমি দেশকে অর্থনৈতিক ভাবে এগিয়ে নিতে রেমিট্যান্স দিয়ে কক্সবাজার জেলায় সর্বোচ্চ চার বার শ্রেষ্ঠ রেমিট্যান্স প্রেরণ কারী হয়। বর্তমানে আমি সংযুক্ত আরব আমিরাত স্বেচ্ছাসেবকলীগের প্রধান উপদেষ্ঠা ও ইউ এ ই আওয়ামীলীগের সহসভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করছি।

অভিযুক্ত টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপের সাথে আমার পরিচয় বেশি দিনের নয়। কক্সবাজারের এক বন্ধুর মাধ্যমে তার সাথে আমার পরিচয় হয়। প্রদীপের সাথে জড়িয়ে আমাকে নিয়ে যেসব কল্পকাহিনী সাজানো হয়েছে তা প্রতিবেদকের সাজানো গল্প ছাড়া আর কিছু নয়। আমার বাগানবাড়ি আর রিসোর্ট নিয়ে ও যা সাজানো হয়েছে তা উক্ত গল্পেরই ক্লাইম্যাক্স।

আমার রাজনৈতিক, সামাজিক, ব্যবসায়ীক উন্নতিতে ইর্ষান্বিত হয়ে আমার প্রতিপক্ষরা হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে এসব মিথ্যা বানোয়াট কথাবার্তা গনমাধ্যমে প্রচার করছে । আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে জানাতে চাই যে ,সাবেক ওসি প্রদীপের কোন কর্মকান্ডের সাথে আমি জড়িত ছিলাম না। যদি কেউ প্রমান দিতে পারে তাহলে আইনানুগ যেকোন শাস্তি আমি মাথা পেতে নিব। মাদকের বিরুদ্ধে আমার অবস্থান স্পষ্ট। মাদকমুক্ত কক্সবাজার চাই। কক্সবাজার জেলাকে মাদকমুক্ত করতে আমার অবস্থান থেকে যা করার দরকার আমি তা করতে সদা প্রস্তুত আছি।

এই ধরনের মিথ্যা বানোয়াট সংবাদে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য আমি সরকারের সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষকে এবং শুভাকাঙ্খীদের বিনীতভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি।

প্রতিবাদকারী,
মোঃ ইসমাইল সিআইপি
সাবরাং টেকনাফ,কক্সবাজার।

Top