izmir kizlar
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam inönü üniversitesi taban puanları

বঙ্গোপসাগরে মহেশখালীর বোট ডাকাতি, থানায় অভিযোগ দায়ের

IMG_20201002_114649.jpg

বিশেষ প্রতিবেদক।।

বঙ্গোপসাগরের গুলিধারের ৬ বিয়া নামকস্থানে ১টি ফিশিং ট্রলার ডাকাতির শিকার হয়েছে। ডাকাতি কবলে পড়া ফিশিং বােটটি মহেশখালী উপজেলার কুতুবজোম ইউনিয়নের ঘটিভাঙ্গা গ্রামের শের আলীর পুত্র মােঃ ফারুক এর মালিকানাধীন এফ.বি মায়ের দোয়া বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) সাগর থেকে কূলে পৌছে এফ.বি মায়ের দোয়ার মালিক ফারুক বাদী হয়ে মহেশখালী থানায় একটি অভিযােগ দায়ের করেন।

অভিযােগ সুত্রে জানা গেছে, ২৭ সেপ্টেম্বর সকাল ১০ টার দিকে ডাকাত দল এফ.বি মায়ের দোয়া ফিশিং ট্রলার গুলির ধারে জাল ফেলে মাছ ধরছে। এই অবস্থায় ২০/২৫ জনের ১টি ফিশিং বােট হঠাৎ তাদের গতিরােধ করে বােটে মাঝি-মাল্লাদের মারধর করে। ট্রলার থেকে ৪ লক্ষ টাকা মূল্যের মাছ ও ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা মূল্যের জাল ও আসবাবপত্র নিয়ে ইঞ্জিন বিকল করে দিয়ে দ্রুত গতিতে পালিয়ে যায়। ডাকাতিকালে এফ.বি মায়ের দোয়া ফিশিং বােটের জেলেরা তাদেরকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ফিশিং ট্রলার এফ.বি ফাহিম এর ছবি ধারণ করে। এ সময় ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত এফ.বি ফাহিম নামের ফিশিং ট্রলারের গায়ে লেখা একটি নাম্বার ১০৬৮৯ পায় তারা।

সুত্রে জানা যায়, ৩ দিন সাগরে ডাকাতের কবলে পড়ে ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়া এফ.বি মায়ের দোয়া ফিশিং বোট ১ অক্টোবর ঘটিভাঙ্গা ঘাটে পৌছে নােঙ্গর করে। মালিক ফারুক বাদী হয়ে এফ.বি ফাহিম নামের ফিশিং ট্রলারের বিরুদ্ধে মহেশখালী থানায় একটি অভিযােগ দায়ের করেন।

অভিযােগটি মহেশখালী থানার এসআই মফিজকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছেন বলে জানান মহেশখালী থানার নবাগত ওসি আব্দুল হাই।

Top