izmir kizlar
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam inönü üniversitesi taban puanları

শহরের হাসপাতাল রোড়ে সন্ত্রাসী হামলার শিকার বিজয় টিভির কক্সবাজার প্রতিনিধি

IMG_20201101_131911.jpg

বিশেষ প্রতিবেদক।।

কক্সবাজার শহরের হাসপাতাল সড়কে হামলার শিকার হয়েছেন বিজয় টিভির কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি এম শাহ আলম।

শনিবার (৩১ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জামায়াত অফিস এলাকায় তাকে অতর্কিত হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শহরের জামায়াত অফিস রোড়ের আত-দাওয়াত রেষ্টুরেন্টের মালিক সায়েদ ইকবাল মুক্তা নামে এক ব্যবসায়ী ও তার সহযোগীর হাতে হামলার শিকার হন বিজয়টিভির কক্সবাজারের জেলা প্রতিনিধি এম শাহ আলম। ওই রেষ্টুরেন্টে খাবার খেলে নষ্ট খাবার পরিবেশন করাকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটির জেরে আত-দাওয়াত রেষ্টুরেন্টের মালিক সায়েদ ইকবাল মুক্তা ও তার সহযোগী লোহার রড় দিয়ে এম শাহ আলমের উপর হামলা চালায়। এতে তার মাথায় আঘাত হলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এই সময় তার আত্মচিৎকারে পথচারী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা এগিয়ে এসে ঘটনাস্থল থেকে মুমুর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। তিনি বর্তমানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।

এলাকাবাসীরা জানায়, মুক্তা একজন মাদকাসক্ত লোক। প্রতিদিন সে কোন না কোন ঘটনা ঘটায়। ভয়ে এলাকাবাসী তার বিরুদ্ধে মুখ খোলে না। তারা সঙ্গবদ্ধ সন্ত্রাসী হিসেবে ওই এলাকায় বেশ পরিচিত। সে প্রভাবশালী এক বিএনপি নেতার কাছের আত্মীয় হিসেবে পরিচিত। অভিযুক্ত সায়েদ ইকবাল মুক্তা শহরের দক্ষিণ রুমালিয়ারছড়া এলাকার মৃত ছৈয়দুল হক সিকদারের অবাধ্য ছেলে। তার আগের বাড়ি পেকুয়া মাতবর বাড়ি বলে জানা গেছে। তার আরেক ভাই মানিক ঝাউতলা মাইক্রো অফিস দেখাশোনা করে।

এদিকে, সে পরিবার নিয়ে ভাইয়ের বাসায় থাকলেও গত বছর জুন মাস থেকে হোটেল আল মুবিনের ২১০ নং রুমে থাকে। তবে সেখানেও গায়ের জোরে ভাড়া দেয়না বলে অভিযোগ উঠেছে। তার কাছ থেকে ভাড়া বাবদ হোটেল কর্তৃপক্ষ প্রায় ৮০ হাজার টাকা পাওনা রয়েছে সুত্রে জানা গেছে। এছাড়াও হাসপাতাল সড়ক এলাকায় অনেক লোক তার কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা পাওনা থাকলেও গায়ের জোরে সেই টাকা পরিশোধ করছে না। বরং পাওনা টাকা ফেরত পাওয়ার কথা বললে উল্টো পাওনাদারকে পিটিয়ে এলাকা ছাড়া করার হুমকি দেয় বলে জানা গেছে।

সাংবাদিক শাহআলমকে হত্যার চেষ্টা ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

Top