izmir kizlar
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam inönü üniversitesi taban puanları

কাউন্সিলরের বোনের বাসা থেকে ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার, আটক-২

IMG_20201111_214913.jpg

বিশেষ প্রতিবেদক।।

কক্সবাজার শহরের ২নং ওয়ার্ড় কাউন্সিলর মিজানের বোনের বাসা থেকে ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ। ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ২ জনকে আটক করা হয়েছে।

আটকরা হলেন- কক্সবাজার শহরের নতুন বাহারছরা এলাকার মৃত আহমদ আলীর ছেলে ফিরোজ খান (২৬) ও ফিশারীঘাট এলাকার মকছুদের ছেলে সুমন (২৫)।

বুধবার (১১ নভেম্বর) দুপুরের দিকে কক্সবাজার শহরের নুনিয়ারছড়া এলাকায় অভিযান চালায় সদর মডেল থানা পুলিশ।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) বিপুল
চন্দ্র দে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের নুনিয়ারছড়া এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় অভিযান চালানো হয়। পরে ওই ঘরে কাউকে পাওয়া না গেলেও ঘরে থাকা জালের ভিতর থেকে ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ওই সময় টমটমে করে এসব ইয়াবা নিতে আসা সন্দেহে চালকসহ দুই জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। আটক হওয়া দুইজন কক্সবাজার সদর থানা হেফাজতে রয়েছে। ঘটনার বিস্তারিত অনুসন্ধান চলছে। সঠিক তথ্য জেনে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

এলাকাবাসী জানায়, কক্সবাজার শহরের নুনিয়াছড়ায় একটি শক্তিশালী সংঘবদ্ধ চক্র দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা ব্যবসা চালিয়ে আসছে। উদ্ধার হওয়া ইয়াবাগুলো ওই সিন্ডিকেটের বলে দাবী করেন এলাকাবাসী। ওই সিন্ডিকেটের একজন ২নং ওয়ার্ড় কাউন্সিলর মিজান। তার বোন লাকীর বাসা থেকে উদ্ধার হওয়া ৬০ হাজার পিস ইয়াবা তার সম্পৃক্ততার প্রমাণ। ইয়াবার পরিমাণ ৫ লাখ বলে দাবী করেন শহর শ্রমিকলীগের আহবায়ক সোহেল রানা। পুলিশের উদ্ধার হওয়া ইয়াবা ৬০ হাজার পিস হলেও মোট ইয়াবা ১লক্ষ ২৫ হাজার পিস বলে দাবী করেন স্থানীয়রা। বাকী ইয়াবাগুলো উদ্ধার ও ওই ইয়াবা পাচারের ঘটনায় কারা কারা জড়িত; তাদের আইনের আওতায় আনতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ দাবী করেন তারা।

এদিকে, নুনিয়াছড়া বড় কবরস্থান এলাকার মমতাজ মিয়ার বাসায় ৩ জন লোক ভাড়া থাকত। তারা কেউ আটক না হলেও আটক ২ জনের একজন সুমন টমটম চালক বলে স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে।

Top